1. admin@agrajatrabd.news : admin :
বিজ্ঞপ্তিঃ-
জেলা-উপজেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে যোগাযোগ ০১৩ ০৯ ৩২ ৩২ ৮১
শিরোনাম
সেচ্ছায় রক্ত দানে ‘লিল্লাহিয়াত ব্লাড ডোনেশন চাঁদপুর’ এর শুভ উদ্বোধন ছেলে এবং বউদের অবহেলায় বিষপানে মায়ের আত্মহত্যা রাজাপুর জমে উঠেছে নির্বাচনী আমেজ মৌলভীবাজারে মাস্ক পরিধান নিশ্চিতে দেড় শতাধিক ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে অর্থদণ্ড ইতিবাচক কাজে লালমোহন থানার ওসি মাকসুদুর রহমান মুরাদ সিলেটে র‌্যাব-৯ এর বিশেষ অভিযানে ভুয়া পাসপোর্ট ও ভিসাধারী দুই নাইজেরিয়ান আটক পাথরঘাটায় ডিবির হাতে ৯ ডাকাত আটক সাভারে র‍্যাবের অভিযানে চোলাই মদ ও মদ তৈরির সরঞ্জামসহ আটক-১ মাদক ব্যবসায়ী সখীপুরে সুইসাইড নোটে ক্ষমা চেয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা নাটোরের সিংড়ায় ইউ,পি সদস্য আরিফের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ’র অভিযোগ উঠেছে

এমপিও নীতিমালায় অন্তর্ভুক্তির দাবিতে অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের ৩ দিনের অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা

  • Update Time : শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৮৮ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক

সংশোধনাধীত জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০১৮ তে বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজে বৈধভাবে নিয়োগ প্রাপ্ত অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্তির দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ৩ দিনের অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন।

৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত ৩ দিন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি পালিত হবে।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশনের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কর্মসূচির বিষয় জানিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশে গ্রামীন অঞ্চলের দরিদ্র ও গরীব শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষা নিশ্চিত করতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে আজ ২৮ বছর পেরিয়ে গেলেও শুধুমাত্র জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভূক্তি না থাকায় এমপিওভুক্তির বাইরে রয়েছে এসব উচ্চ শিক্ষায় নিয়োজিত শিক্ষক। গত বছরের শেষ দিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় জনবল কাঠামো সংশোধনের উদ্যোগ গ্রহণ করে এবং সংশোধনী কমিটির প্রথম সভায় অনার্স-মাস্টার্স কোর্সে পাঠদানরত শিক্ষকদের জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে সর্ব সম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। পরবর্তীতে সরকারের পলিসির বিষয় উল্লেখ করে অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের নীতিমালার বাইরে রাখার সিদ্ধান্ত নেন সংশোধনী কমিটি যা অত্যন্ত দুঃখজনক।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বেসরকারি কলেজগুলোতে ১৯৯৩ সাল হতে অনার্স-মাস্টার্স কোর্স চালু করা হলেও এসব শিক্ষকদের আজ পর্যন্ত সরকারী নীতিমালা জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। শিক্ষক নিয়োগ থেকে শুরু করে পাঠদানের অনুমতি, সিলেবাস প্রণয়ন, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, ফলাফল প্রকাশসহ সকল কার্যক্রম তদারকি করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু এমপিও (বেতনের সরকারি অংশ) চাইলে সরকারি সিদ্ধান্তের দোহাই দেওয়া হয়। বহু আন্দোলন সংগ্রামের পর শিক্ষকদের বেতন ভাতা স্ব স্ব প্রতিষ্ঠান থেকে প্রচলিত স্কেলে শতভাগ প্রদানের আদেশ জারি করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানগুলো ফ্যান্ড না থাকার কারণ দেখিয়ে শতভাগ বেতন দেওয়ার আদেশ না মেনে কলেজ ভেদে ২ থেকে ১০ হাজার টাকা বেতন প্রদান করা হয় । আবার অনেক কলেজ আছে কোন টাকাই প্রদান করেনা। শিক্ষকদের বিনা বেতনে এবং নাম মাত্র টাকায় বর্তমান বাজারে পরিবারের ভরণপোষণ করা একেবারেই অসম্ভব। কিছু শিক্ষকদের ন্যূনতম বেতন দেওয়া হলেও বর্তমানে করোনা মহামারীতে তা ৬ মাস ধরে বন্ধ রয়েছে।

এসব শিক্ষকের সমস্যার স্থায়ী সমাধানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বিগত দিনে ৩ টি নির্দেশনা শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে প্রদান করা হয়। যা আজও বাস্তবায়ন করা হয়নি। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২ টি সুপারিশ ও শিক্ষা অধিদপ্তরের সাবেক দুজন মহাপরিচালকের ২ টি সুপারিশ থাকার পরেও অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। এছাড়া একই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে একই সিলেবাসে পাঠদান করিয়ে পূর্বে ৪৫টি জাতীয়করণকৃত কলেজের অনার্স-মাষ্টার্স শিক্ষকেরা ক্যাডারভুক্ত হয়েছেন এবং বর্তমানে ২৭৫ টি কলেজের অনার্স মাষ্টার্স শিক্ষকেরা নন-ক্যাডার হিসাবে আত্নীকরণ হতে যাচ্ছেন। আবার একই এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানে উচ্চ মাধ্যমিক ও সন্মান (পাস) কোর্সের শিক্ষকরা এমপিওভুক্ত এবং মাদ্রাসা পর্যায়ে ফাজিল ও কামিল শিক্ষকরা এমপিওভুক্ত হতে পারলেও আমরা কলেজ পর্যায়ে অনার্স-মাস্টার্সের শিক্ষকরা আজও এমপিওভুক্ত হতে পারিনি যা অত্যন্ত দুঃখজনক। উল্লেখ্য, আমাদের যৌক্তিক দাবীর স্বপক্ষে দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করে ইলেকট্রনিক ,প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃটি আকর্ষণ করে আসছি। তবু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কেউ দাবি বাস্তবায়নে এগিয়ে আসেননি।

সংগঠনের আহ্বায়ক হারুন অর রশিদ বলেন, ‘শুধুমাত্র জনবল কাঠামোর অজুহাতে দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে আমাদেরকে কেন সরকারি সুযোগ-সুবিধার (এমপিও) বাইরে রাখা হয়েছে তা আমার বোধগম্য নয়। তাই মানবতার মা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ ও পেশাগত দাবি আদায়ের জন্য আমরা অহিংস ও শাান্তিপূর্ণভাবে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ৩ দিন ব্যাপি মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করব। আমরা প্রবলভাবে বিশ্বাস করি যে, হাজার বছরের সর্বশেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের মানবিক দাবি মেনে নিবেন’।

সংগঠনের সদস্য সচিব মোস্তফা কামাল বলেন,‘ উচ্চ শিক্ষায় নিয়োজিত ৫০০০ হাজার শিক্ষকের বেতন ভাতার যৌক্তিক দাবিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে “মানববন্ধন ও শান্তিপূর্ণ অবস্থান” কর্মসূচি পালন করব’। তিনি সারাদেশের সকল অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের উক্ত কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকার আহ্বানও জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৪৫০,৬৪৩
সুস্থ
৩৬৪,৯১৬
মৃত্যু
৬,৪২০
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২,২৩০
সুস্থ
২,২২৬
মৃত্যু
৩২
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব