1. admin@agrajatrabd.news : admin :
বিজ্ঞপ্তিঃ-
জেলা-উপজেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে যোগাযোগ ০১৩ ০৯ ৩২ ৩২ ৮১
শিরোনাম
সৌদি আরবে বর্ণী প্রবাসী ঐক্য পরিষদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কে ফুল দিয়ে সংবর্ধনা  বেলাবতে জমিতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পষ্ট হয়ে ১ বৃদ্ধের মৃত্যু দাকোপে অক্সিজেন সিলিন্ডার ব্যাংক ও হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা স্থাপন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন রাজাপুরে ৩ সন্তানের জনক ব্যবসায়ীকে হত্যার ঘটনায় মামলা গ্রেফতার ২ বাধ নির্মান করা হলো বাকেরগঞ্জের রঙ্গশ্রী ও নিয়ামতি ইউনিয়নের সোনাইমুড়ী নিখোঁজের ১ দিন পর স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার “মোহাম্মদ আলী কলেজ” এর অবকাঠামো নির্মাণ উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়ার অনুষ্ঠান। অনলাইন শিক্ষা বনাম ভালো ফলাফল সিলেট এমসি কলেজে গৃহবধূকে গনধর্ষণ: পুলিশ চার্জশিট দিতে পারেনি দুই মাসেও !  ধান কাটতে বাঁধা দেয়ায় দেশীয় অস্ত্রের কোপে একজন নিহত

আঁধারের বুক চিড়ে যেভাবে ফিরে এলো ছোট্ট জিনিয়া; কে এই লোপা?/অগ্রযাত্রা এক্সক্লুসিভ

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৫২ বার পড়া হয়েছে

রিপোর্টঃ মেহেদী হাসান অর্নব ও আসমা উল হুসনা-

ঐতিহ্যের ধারক বাহক টিএসসি জানা অজানা হাজারো গল্পের সাক্ষী। কিন্ত ছোট্ট জিনিয়ার প্রত্যাবর্তনের গল্প যেনো একটু আলাদা। সবার ভালোবাসা আর প্রার্থনায় কালো মেঘের আড়াল থেকে ফের মায়ের কোলে ফিরেছে টিএসসির ফুলকণ্যা জিনিয়া। আবারো তার হাতে শোভা পাচ্ছে হরেক রকমের ফুল। কিন্ত ১ সেপ্টেম্বর থেকে টানা ছয়দিন নিখোঁজ থাকা অবস্থায় কি ঘটেছিলো জিনিয়ার সাথে? কিভাবেই বা মুখোশধারী অসভ্যদের খপ্পরে অজানা পরিনতির দিকে হারিয়ে গিয়েছিলো সে?? সেসব প্রশ্নের উত্তর জানতে অগ্রযাত্রা’র একটি টিম কথা বলে মুক্ত পাখির মতন টিএসসির সারাটা প্রান্ত ঘুরে বেড়ানো জিনিয়ার সাথে, কথা হয় জিনিয়ার মা এবং ঘটনার প্রতক্ষদর্শী আরো কয়েকজনের সাথে। জিনিয়া অগ্রযাত্রা কে জানায়, দুজন মহিলা তাকে ফুচকা খাওয়াতে চায়, মূলত এই দুই মহিলা ছিলো লেডি শাহেদ উপাধি পাওয়া কুখ্যাত পাচারকারী লোপা তালুকদার ও তার মেয়ে নদী তালুকদার। লোপা ও নদী নামের ঐ দুই পাচারকারী মহিলাকে জিনিয়া ভার্সিটির অন্যসব আপুদের মতনই ভেবেছিলো, পাচারকারী লোপা তাকে ফুচকা খাওয়ায়,ফুচকা খাওয়ার পর থেকেই ধীরে ধীরে ঘুম পেতে থাকে তার। এরপর চোখ মেলে সে দেখে সে যেখানটায় আছে তা তার চিরচেনা টিএসসি নয়,বরং অজানা অচেনা একটা বদ্ধ ফ্লাট বাসা। অপহরণকারী লোপা জিনিয়ার নাম বদলে রোশনি রাখেন বলেও অগ্রযাত্রাকে জানায় জিনিয়া। সে আরো জানায়, সে অপহরণকারী মহিলার কাছে বার বার আকুতি জানায় তাকে তার মায়ের কাছে নিয়ে যাবার জন্য, কিন্ত বিনিময়ে পাচারকারী মহিলা লোপা ছোট্ট জিনিয়াকে মারধর করে দমিয়ে রাখতো। জিনিয়ার ভাষ্যমতে তাকে অপহরণ করে যে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিলো সেখানে তার চেয়ে ছোট বয়সী আরো একটি মেয়ে শিশুকে দেখেছে সে, এবং আরেকজন পুরুষ লোক প্রায়ই ঐ বাসায় আসা যাওয়া করতো। কিন্ত অপহৃত থাকা অবস্থায় তার খুব ঘন ঘন ঘুম পেতো। সবসময় শুধুই ভয় হতো। কারণ জিনিয়া আগেও পাচারকারীদের গল্প শুনেছিলো তার মায়ের মুখে। সে কিছুটা হলেও বুঝতে পেরেছিলো তার সাথেও তেমন কিছু ঘটেছে।
মায়ের কাছে ফিরে আসতে পেরে জিনিয়া খুব খুশি বলেও জানায় অগ্রযাত্রাকে।

যেভাবে অপহরণ করে পাচারকারী লোপা…

টিএসসি এলাকায় ভ্রাম্যমাণ চা,পান,ও সিগারেট বিক্রি করে বেড়ান জিনিয়াদের প্রতিবেশী মাসুমা বেগম (ছদ্মনাম) , তিনি অগ্রযাত্রা কে জানান, ঘটনার দিন দশেক আগ থেকেই টিএসসি এলাকায় শিকারের খোঁজে আনাগোনা শুরু করে লোপা। প্রকাশ্যেই একের পর এক গাঁজা সেবন করে যেতেন এই মহিলা। জিনিয়াকে অপহরণের দিন এই মহিলার সাথে আরেকজন মহিলা আসে পরে জানা যায় সে লোপার মেয়ে নদী। মাসুমা জানান- তারা দুজন মিলে জিনিয়াকে সিএনজিতে করে নিয়ে যায়। এমন একটা জায়গা থেকে জিনিয়াকে সিএনজিতে তোলা হয়,যে জায়গাটা ছিলো সিসিটিভি ক্যামেরার নজরদারির বাইরে। মূলত ধুরন্ধর লোপা বেশ ঘুরে ঘুরে যাচাই বাছাই করেই জিনিয়াকে অপহরণের প্ল্যান করেছিলেন বলেই ধারনা করা যাচ্ছে। আর একজন সিগারেট বিক্রেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে অগ্রযাত্রাকে জানান- তার কাছ থেকে ২ প্যাকেট সিগারেট নিয়ে দাম না দিয়েই উধাও হয়ে গেছে এই লোপা তালুকদার।

কে এই লোপা তালুকদার?

সম্পূর্ণ ভুয়া ও অনুমোদনহীন অগ্নি টিভি নামক একটি টিভির ম্যানেজিং ডিরেক্টর পরিচয় দিতো পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলা থেকে উঠে আসা পাচারকারী লোপা তালুকদার। কিন্ত সেলফিবাজি, ও নানান রং ঢংয়ে সাংবাদিক সমাজে নিজের খানিকটা পরিচিতি তৈরি করে নেন এই ধুরন্ধর মহিলা। তার এই ভুয়া অগ্নি টিভির সাংবাদিক বানানোর নামে কয়েকজনের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেবার অভিযোগ পেয়েছে অগ্রযাত্রা’র এন্টি ক্রাইম ইউনিট। এছাড়া পুলিশ সুত্রে জানা গেছে,লোপা একটি ট্রিপল মার্ডার মামলার আসামি, তার ফেসবুক আইডি বিশ্লেষণ করে দেখা যায়,বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচিহ্ন মুজিবকোটকে তামাশার বস্ততে পরিনত করেছে এই পাচারকারী মহিলা। তার দৈনন্দিন চলাফেরা ছিলো বেশ উশৃংখল ও বেপরোয়া। বর্তমানে সারাদেশে লেডি শাহেদ হিসেবে সকলের ঘৃণা ও ধিক্কারে জর্জরিত হচ্ছেন পাচারকারী লোপা তালুকদার।

প্রসঙ্গত, গত ১ সেপ্টেম্বর ঢাবি ক্যাম্পাস সংলগ্ন টিএসসি চত্বর থেকে নিখোঁজ হয় জিনিয়া নামে ৯ বছর বয়সী ফুল বিক্রেতা এক শিশু। তার নিখোঁজের বিষয়টি গণমাধ্যমে গুরুত্বের সহিত প্রচার হলে তা নানান মহলে সাড়া ফেলে। এরই প্রেক্ষিতে গত সোমবার নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার একটি বাসা থেকে নিখোঁজ জিনিয়াকে উদ্ধার করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার একটি দল। এসময় জিনিয়াকে অপহরণের দায়ে আটক হন লোপা তালুকদার নামে এক নারী। এরপর থেকে এই পাচারকারী নারীর বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় তুলেছেন নোটিজেনরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৪৫৯,২৭২
সুস্থ
৩৭৩,৯২৪
মৃত্যু
৬,৫৫২
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
১,৯০৮
সুস্থ
২,২০৯
মৃত্যু
৩৬
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব