1. admin@agrajatrabd.news : admin :
বিজ্ঞপ্তিঃ-
জেলা-উপজেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে যোগাযোগ ০১৩ ০৯ ৩২ ৩২ ৮১
শিরোনাম
অনলাইন শিক্ষা বনাম ভালো ফলাফল সিলেট এমসি কলেজে গৃহবধূকে গনধর্ষণ: পুলিশ চার্জশিট দিতে পারেনি দুই মাসেও !  ধান কাটতে বাঁধা দেয়ায় দেশীয় অস্ত্রের কোপে একজন নিহত দক্ষিণ রণিখাইয়ে সাধারণ জনগনের মাদক বিরোধী অভিযান ছাতকে জনকল্যাণ সোসাইটির উদ্দোগে শীতবস্ত্র বিতরণ ও নবাগত কমিটি ঘোষনা ধর্মপাশায় হাওর রক্ষা বাঁধের ফ্রী ওয়ার্ক জরিপ কাজ পর্যবেক্ষণে জেলা প্রশাসক আল-হিদায়াহ ইসলামিক ইন্সটিটিউটের মাদরাসা শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত ইংরেজি কোর্স সম্পন্ন ধর্মপাশায় ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ কাজের উদ্বোধন  রাজাপুরে সাবেক সেনা সদস্যের বাড়ির প্রবেশ পথে যুবকের লাশ, রাজাপুরজুড়ে চাঞ্চল্য রাজাপুরে পুলিশ কর্মকর্তার অসৌজন্যমূল আচরনে প্রেসক্লাবের নিন্দা

লালমনিরহাট পৌরসভা মেয়রের মানবিকতার দৃষ্টান্ত

  • Update Time : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৫ বার পড়া হয়েছে

মো:খায়রুল ইসলাম লালমনিরহাট সদর প্রতিনিধিঃ

লালমনিরহাট পৌরসভার মেয়র রিয়াজুল ইসলাম রিন্টু নিজ অর্থায়নে চিকিৎসার মাধ্যমে বৃদ্ধ জিব্রাইলের চোঁখের আলো ফিরিয়ে দিয়ে এক মানাাবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।

জানা গেছে, জেলা শহরে পূর্ব খুটামারা নবী নগরের মৃত আকবর আলীর পুএ বৃদ্ধ জিব্রাইল হোসেন (৬৫) হঠাৎ করে চোঁখে আঘাত পাওয়ার কারনে আস্তে আস্তে তার চোঁখের জ্যোতি কমতে থাকে। এক বছরের মধ্যে পৃথিবী টা তার কাছে অন্ধকার রাজ্য পরিনত হয়ে যায়। তিনি পেশায় একজন দিনমজুর। স্ত্রী ও তার দুই সন্তান নিয়ে দিন মজুরের অর্থে টানা পোড়ায় দিন কাটে।

এই দুই সন্তানের মধ্যেও তার ছোট সন্তান প্রতিবন্ধী। দু চোঁখে আলো না থাকার কারনে কর্মহীন হয়ে পড়েন বৃদ্ধ জিব্রাইল। টাকার অভাবে চিকিৎসা করতে না পারা জিব্রাইল অন্ধত্ব বরণ করে নিয়ে বাড়িতে বিছানা শুয়ে বসে অনাহারে দিন কাটে।

এদিকে তার স্ত্রী শেফালি বেগম সংসারের হাল ধরেন। তিনি রাজমিস্ত্রীর জোগালির কাজ করেন। বড় ছেলে সিরাজুল ইসলাম (১৭) সেও লেখাপড়া না করে সেও মায়ের সাথে রাজমিস্ত্রীর লেবারীর কাজ করে।বর্তমান করোনা পরিস্থিতি পরিবারটিতে আরো বিপর্যয়ের মুখে ফেলে দেয়।

বিয়য়টি লারমনিরহাট পৌরসভার মানবিক মেয়র মোঃ রিয়াজুল ইসলাম রিন্টু জানতে পারে। মেয়র সাহেব মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করে পরিবারটিকে সহায়তা করতে ব্যক্তিগত ভাবে আর্থিক সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন। মেয়র নিজে বৃদ্ধ জিব্রাইলের চোখের আলো যেন ফিরে পায় তার জন্য চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায়।
স্থানীয় একটি বে সরকারি চক্ষু হাসপাতালে তাকে ভর্তি করিয়ে অপারেশনের করায়। এই অপারেশনের মাধ্যমে তার চোঁখে আবার আলো ফিরে আসে। এ চিকিৎসার সকল খরচ মেয়র নিজে বহন করেন। মেয়র অন্ধ বৃদ্ধ ব্যাক্তির আলোর দিশারী হয়ে অন্ধ জনের চোখের আলো ফিরিয়ে দিয়ে এক মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন। আর মনে করিয়ে দেন মানুষ মানুষের জন্য।

বৃদ্ধ লোকের পরিবারের সাথে কথা বলে জানা যায় পরিবারটি এখন খুব খুশি।বৃদ্ধ জিব্রাইল বলেন,মেয়র শোনার সাথেই আমাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে জান এবং অনেক টাকা দিয়ে আমার চিকিৎসা করার কারনে আজ আমি আবার পৃথিবীর আলো দেখতে পাচ্ছি।

বৃদ্ধ ও তার পরিবার দেশের মমতাময়ী প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় বিওবানদের কাছে প্রার্থনা করেন, এই বৃদ্ধা বয়সে তার পক্ষে পরিশ্রমের কাজ করা প্রায় অসম্ভব। তাই সামান্য কিছু অর্থ সহযোগীতা পেলে বাড়ির পাশে কোথাও একটি মুদির দোকান দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে পরিবারে সাহায্য করতে পারতেন।

মেয়র রিন্টুর বলেন,এক অসহায় অন্ধ লোক ঈদের দুই দিন আগে এসেছিল পৌরসভায় সাহায্য সহযোগিতার জন্য, আমি লোকটিকে সাহায্য করার ফাঁকে কুশল বিনিময় করার সময় জানতে পায় ডাক্তার বলেছেন অপারেশন করলে সে আবার দেখতে পারবে,তখন আমি লোকটিকে আশ্বস্ত করে বলি, ঈদের ব্যস্ততার পরে আপনার অপারেশনের সবধরনের ব্যবস্থা করবো। আল্লাহর অশেষ রহমতে ঈদের পর অরবিট চক্ষু হাসপাতাল,লালমনিরহাট এ -তার অপারেশন সম্পন্ন হয়, তিনি এখন সুস্থ আছেন।
এভাবে অসহায় ও দুস্থ মানুষের সেবায় নিজেকে সব সময় নিয়োজিত রাখতে চাই নিজেকে। তিনি পৌর বাসীর কাছে দোয়া চান এবং বলেন,এ রকম আরো কোন রোগী থাকলে আমাকে জানাবেন,আমি এ সব রোগীদের ফ্রি চিকিৎসা করাবো

লালমনিরহাট পৌরসভার সৎ দক্ষ,সাহসী,মানবিক মেয়র রিন্টু পর পর দুই বার মেয়র নির্বাচিত হন।

দ্বিতীয়বার নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হন। তিনি বর্তমান জেলা আওয়ামীলীগের একজন স্বক্রিয় কর্মী। তার বাবা আলহাজ্ব মোঃ মকবুল হোসেন লালমনিরহাট পৌরসভার খুবই জনপ্রিয় মেয়র ছিলেন। তিনি কয়েক বার একাধারে মেয়র নির্বাচিত হন। তাঁকে আধুনিক লালমনিরহাট পৌরসভার রূপকার বলা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৪৫৭,৩৬৪
সুস্থ
৩৭১,৭১৫
মৃত্যু
৬,৫১৬
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২,২৭৩
সুস্থ
২,২২৩
মৃত্যু
২০
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব