1. admin@agrajatrabd.news : admin :
বিজ্ঞপ্তিঃ-
জেলা-উপজেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে যোগাযোগ ০১৩ ০৯ ৩২ ৩২ ৮১
শিরোনাম
অনলাইন শিক্ষা বনাম ভালো ফলাফল সিলেট এমসি কলেজে গৃহবধূকে গনধর্ষণ: পুলিশ চার্জশিট দিতে পারেনি দুই মাসেও !  ধান কাটতে বাঁধা দেয়ায় দেশীয় অস্ত্রের কোপে একজন নিহত দক্ষিণ রণিখাইয়ে সাধারণ জনগনের মাদক বিরোধী অভিযান ছাতকে জনকল্যাণ সোসাইটির উদ্দোগে শীতবস্ত্র বিতরণ ও নবাগত কমিটি ঘোষনা ধর্মপাশায় হাওর রক্ষা বাঁধের ফ্রী ওয়ার্ক জরিপ কাজ পর্যবেক্ষণে জেলা প্রশাসক আল-হিদায়াহ ইসলামিক ইন্সটিটিউটের মাদরাসা শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত ইংরেজি কোর্স সম্পন্ন ধর্মপাশায় ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ কাজের উদ্বোধন  রাজাপুরে সাবেক সেনা সদস্যের বাড়ির প্রবেশ পথে যুবকের লাশ, রাজাপুরজুড়ে চাঞ্চল্য রাজাপুরে পুলিশ কর্মকর্তার অসৌজন্যমূল আচরনে প্রেসক্লাবের নিন্দা

নেত্রকোনায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষ নিহত এক

  • Update Time : সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
  • ১৩০ বার পড়া হয়েছে

রিপোর্টার: এস এম সোহাগ রানা,
নেত্রকোনা থেকে-
নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় মাদ্রাসায় শিক্ষকের চেয়ারে বসাকে কেন্দ্র করে মাদ্রাসার ছাত্রদের সাথে মারামারির ঘটনা ঘটে একই এলাকার তিন কিশোরের। এ সময় মাদ্রাসা বেশ কয়েকজন ছাত্র মিলে সোলেমান নামের এক কিশোরকে মারধর করে। এই ঘটনার পরের দিন আশংকাজনক অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রোববার (১২ জুলাই) সন্ধ্যার পর সে মারা যায়।

শনিবার (১১ জুলাই) দুপুরের দিকে মেঘশিমূল হাফেজিয়া মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে এই মারামারির এ ঘটনা ঘটে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সোলেমান তার বন্ধুদের নিয়ে শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে মাদ্রাসার পাশে ঘুরতে যায়। এ সময় সোলেমান মাদ্রাসার একটি চেয়ারে বসে। এর প্রতিবাদ জানায় মাদ্রাসার কিছু ছাত্ররা। এরই সূত্র ধরে মাদ্রাসার ছাত্ররা সোলেমানকে বাশ দিয়ে মারধর করে। তবে তৎক্ষণাত তার কোন রক্তক্ষরণ হয়নি। বাড়িতে ফিরে বিকেল পর্যন্ত অনেকটা স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করছিল সে। কিন্তু সন্ধ্যার পর থেকেই তার শরীর খারাপ করতে থাকে। শুরু হয় অনবরত বমি। সারা রাত বমি করতে করতে নিথর হয়ে যাচ্ছিল তার দেহ। সেই সাথে খিচুনিও ওঠে। একই সাথে শুরু হয় অসংলগ্ন কথাবার্তা বলা।

পরিবারের লোকজন প্রথমে বিষয়টি এতো গুরুত্ব না দিলেও পরে অবস্থা বেগতিক দেখে সকালে পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে সেখানে অবস্থা খারাপ দেখে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে রেফার করা হয়। দুপুরের দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে তাকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তার একটি চোখ নষ্ট হয়ে গেছে বলে জানান। তাকে বাঁচাতে হলে এখনই অপারেশন করতে হবে বলে জানান ডাক্তার। তাই তারা ঢাকা নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

এরপর পরিবারের লোকেরা তাকে নিয়ে ঢাকার পথে রওয়ানা দেন। ঢাকার টঙ্গীতে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পৌছামাত্রই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে সোলেমান।

মারা যাওয়া শাহ মোহাম্মদ সোলেমান হক (১৩) নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের মেঘশিমূল গ্রামের শাহ মোহাম্মদ এনামুল হকের ছেলে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তার লাশ বাড়িতে এনে রাত ১টার দিকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা করার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছে নিহত সোলেমানের পরিবার।

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাচ্চাদের দুই পক্ষের মারামারিতে একজন গুরুতর আহত হলে তাকে প্রথমে পূর্বধলা ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে ঢাকা নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

তবে এই ঘটনায় রাত ১২টা পর্যন্ত কোন মামলা দায়ের করা হয়নি বলে জানিয়েন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৪৫৭,৩৬৪
সুস্থ
৩৭১,৭১৫
মৃত্যু
৬,৫১৬
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২,২৭৩
সুস্থ
২,২২৩
মৃত্যু
২০
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব