1. admin@agrajatrabd.news : admin :
বিজ্ঞপ্তিঃ-
জেলা-উপজেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে যোগাযোগ ০১৩ ০৯ ৩২ ৩২ ৮১
শিরোনাম
ডিআইজি হাবিবের মহানুভবতায় গোরস্থানের জমি পেলো ঠিকানাহীন বেদে সম্প্রদায় জয়পুরহাট ক্ষেতলালে আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঝিনাইদহে গেল ৪৮ বছরেও স্বীকৃতি পাননি মুক্তিযুদ্ধে স্বজন হারানো পরিবারটি। হাইমচর জমিন সংক্রান্ত বিরাধ নিরীহ পরিবারর উপর হামলা\ আহত ৩ সোনাইমুড়ীতে কৃষকলীগের বিজ বিতরণ বাংলাদেশ হেলথ্ এ্যাসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা শাখার উদ্যােগে দাবি আদায়ের লক্ষ্যে কর্মবিরতি ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত বাদল রায়ের মৃত্যুতে ঝিনাইদহে শোকসভা মিয়ানমার কক্সবাজারের ৯ জেলেকে ফেরত দিল। জাতীয় শ্রমিক লীগ হরণী ইউনিয়ন শাখায় নবনির্বাচিত কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত। সিলেট-ভোলাগঞ্জ রোডে মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনা

সেই বৃদ্ধ কে লাঞ্চিত করার মুলহোতা এখন পুলিশের জিম্মায়

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১১ জুন, ২০২০
  • ১৯৫ বার পড়া হয়েছে

রিপোর্ট আসমা উল হুসনা

অবশেষে চিংড়ি প্রকল্পের বরগা বাবদ পাওনা টাকা চাওয়ার জের ধরে, নুরুল আলম নামে সেই বৃদ্ধ কে বিবস্ত্র করে মারধর করার মুলহোতা মো আনসুর আলম কে বুধবার বেলা ১১টার দিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে দুপুরে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে গণ মাধ্যম কে পাঠানো এক বারতায় এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। মহেশখালী থানার ষাইটমারা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন চকোরিয়া থানা ওসি হাবিবুর রহমান। এর আগে ৩ জুন মামলার তিন আসামি কে গ্রেফতার করলেও পলাতক থাকে মুলহোতা আনসুর। গ্রেফতার কৃত আনসুর আলম ঢেমুশিয়া ৪ নং ওয়ারডের যুবলীগের সভাপতি ছিলেন।তবে ঘটনার পর তাকে বহিস্কার করা হয়। এবং ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর সারাদেশে নিন্দার ঝড় ওঠে এবং পুলিশ আত্মগোপনে থাকা মুলহোতা আনসুর কে ধরতে মরিয়া হয়ে ওঠে। আটক কৃত আনসুর চকোরিয়া উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ছয়কুড়িটিক্কা পাড়ার মৃত মনিরের ছেলে আর নিরযাতিত বৃদ্ধ নুরুল আলম ঢেমুশিয়ার বাসিন্দা। উল্লেখ গত গত ২৪ শে মে ঈদের কেনাকাটা করে ঢেমুশিয়া স্টেশন থেকে টমটম যোগে বাড়ি ফেরার সময় আনসুর ও তার সহযোগীরা বৃদ্ধ নুরুল আলমের ওপর চড়াও হয়ে চড় থাপ্পড় মারতে থাকে গালিগালাজ সহ তাকে বিবস্ত্র করে নিরযাতন চালায় বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন নুরুল আলমের ছেলে আশরাফ হোসেন। এক চিংড়ি প্রকল্পের বরগায় ইউপি সদস্যা আরজ খাতুনের প্রতারণা জের ধরে আনিসুর ও তার সহযোগিদের হাতে লাঞ্চিত হন বৃদ্ধ এবং এলাকার অনেকেই সেই ভিডিও মুঠোফোনে ধারণ করলেও এগিয়ে আসেনি কেউ, ঘটনার পরদিন নুরুল ইসলামের ছেলে বাদী হয়ে মামলা করার প্রথম থেকেই উঠে পড়ে লাগে পুলিশ। মামলার আসামি হিসেবে মৃত মনির উল্লার ছেলে বদিউল আলম, আনসুর আলম, শাহ আলম , শাহ আলমের স্ত্রী আরজ খাতুন,মিজানুর রহমান, রাসেল, রিয়াজ উদ্দিন, জয়নাল আবেদিন ও রুবেলের নাম উল্লেখ করা হয়। বৃদ্ধ নুরুল ইসলামের ছেলে আশরাফ ঘটনার পরদিন গণমাধ্যমে জানান এলাকার ইউপি সদস্যা আরজ খাতুন কে তার বাবা সহ আরো দুজন ছয় বছরের জন্য চিঙড়ি প্রকল্প বরগা দিলেও সেই টাকা পরিশোধ না করে আবারও বরগা দিতে জোর করতে থাকে আরজ খাতুন। কিন্তু তাতে রাজি না হওয়ায় সেই ইউপি সদস্যার লেলিয়া দেয়া বাহিনীর প্রধান ভুমিকায় থেকে আনিসুর, মিজান রুবেল রিয়াজ কাউসার সহ আরো সহযোগী নিয়ে তার বাবা কে পথে বিবস্ত্র করে লাঞ্চিত করে। এর আগে এই মামলায় তিন আসামি বদিউল আলমের ছেলে মো ফারুক, আরজ খাতুনের মেয়ে জামাই বেলাল, রুবেলের ভগ্নিপতি কায়সার কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৪৫৫,০৯১
সুস্থ
৩৬৯,৪৯২
মৃত্যু
৬,৪৯৬
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২,২৯২
সুস্থ
২,২৭৪
মৃত্যু
৩৭
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব