1. admin@agrajatrabd.news : admin :
বিজ্ঞপ্তিঃ-
জেলা-উপজেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে যোগাযোগ ০১৩ ০৯ ৩২ ৩২ ৮১
শিরোনাম
বিশ্বনাথে মাদ্রাসাছাত্রকে ‘বলাৎকার’, যুবক গ্রেপ্তার সিলেট মুরারি চাঁদ কলেজে গণধর্ষণ মামলার চার্জশিট দাখিল র‍্যাব-৮ কর্তৃক বরগুনা জেলার সদর থানায় ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা বগুড়ায় ডিভাইসসহ অনলাইনে জুয়া পরিচালনাকারী গ্রেফতার র‍্যাব-৮ কর্তৃক বরগুনা জেলার সদর থানায় ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা ঢাকা কলেজের সাবেক ছাত্র একজন সফল ইমরান খানের গল্প স্থানীয় নির্বাচনে মনোনয়ন বানিজ্য বরদাস্ত করা হবেনা, ওবায়দুল কাদের নরসিংদীর বেলাবতে উপজেলা চেয়ারম্যান সমশের জামান ভূইয়া রিটন কর্তৃক দুই ভাইস চেয়ারম্যানের ভাতা আত্মসাৎ “ইকরা মডেল একাডেমি ” এর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত। টাঙ্গাইলের বাসাইলে অটোরিক্সার চাপায় মাদরাসা ছাত্রী নিহত

অবৈধ শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও ধারণকে কেন্দ্র করেই খুন হয় দাউদকান্দির হৃদয়

  • Update Time : বুধবার, ১০ জুন, ২০২০
  • ৫৬০ বার পড়া হয়েছে

রিপোর্টঃ আব্দুল্লাহ আল নোমান(কুমিল্লা থেকে)-

কুমিল্লার দাউদকান্দির সিএনজি পাম্প কর্মচারী হৃদয় হত্যার পাঁচ দিনের মধ্যে হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে চাচাত ভাই সুজন মিয়া (২০) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
অবৈধ মেলামেশার ভিডিও ধারণকে কেন্দ্র করেই হৃদয়কে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ নিশ্চিত হয়।
শুক্রবার বিকেলে গ্রেফতারকৃত সুজন (২০)কে শনিবার আদালতে জবানবন্দির মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
গ্রেফতারকৃত সুজন মিয়া দাউদকান্দি পৌরসভার গাজীপুর দিঘিরপাড় গ্রামের আবু হানিফ মিয়ার ছেলে।
জানা যায়, গত ১ জুন সোমবার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি উপজেলার উত্তর সেন্দি এলাকার তাসফিন সিএনজি রিফুয়েলিং স্টেশনের পশ্চিম পাশে জমি থেকে হৃদয়ের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
ওই দিনই নিহতের বাবা আব্দুল মতিন (মিন্টু) মিয়া অজ্ঞাত নামে থানায় অভিযোগ করেন। দাউদকান্দি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে হত্যার রহস্য উদঘাটনে মাঠে কাজ শুরু করেন এসআই মোঃ জাহাঙ্গীর আলম খান। তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় মোবাইল কললিষ্ট থেকে সন্দেহমূলক ভাবে চাচাত ভাই মোঃ সুজন মিয়া তিনজনকে আটক করে পুলিশ। এরপর জিজ্ঞাসাবাদে চাচাত ভাই সুজন খুনের কথা স্বীকার করায় আটককৃত অন্য দুজনেকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। পরদিন কুমিল্লার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতের বিচারক নুসরাত জাহান উর্মি নিকট খুনের ঘটনা জানিয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় সুজন।
জবানবন্দির বরাত দিয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জাহাঙ্গীর আলম খান জানান, দাউদকান্দি পৌরসভার গাজীপুর গ্রামের একটি মেয়ের সাথে আসামী সুজনের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। প্রায় সময়ই হৃদয়কে সাথে নিয়ে ওই মেয়ের দেখা করতে যেত সুজন। একদিন মেয়ের বাবা মা বাড়ীতে না থাকায় হৃদয়কে বাইরে থাকতে বলে সুজন ঘরে গিয়ে প্রেমিকার সাথে শারিরীক ভাবে মেলামেশা করে। তাদের অজান্তে মেলামেশা দৃশ্য জানালা দিয়ে মোবাইলে ভিডিও রেকর্ড করে হৃদয়। সেই ভিডিও গেল রমজানের কয়েকদিন আগে হৃদয় সুজনকে দেখিয়ে বলে তাকেও মেলামেশার সুযোগ দিতে হবে। সুজন তাকে (হৃদয়) অনুরোধ করে যে, মেয়েটির বিয়ে হয়ে গেছে, এখন ভিডিওটি প্রকাশ করলে মেয়েটির সংসার ভেঙ্গে যাবে এবং তার মান সম্মানও যাবে। কোনভাবেই ওই ভিডিও উদ্ধার করতে পারছে না সুজন। পরে কৌশলে ভিডিও উদ্ধার করার জন্য অন্য মেয়ের লোভ দেখিয়ে ঘটনার দিন(৩১মে) সন্ধ্যায় হৃদয়কে পাম্পের পশ্চিম পাশে ডেকে নেয় সুজন। ওইখানে তার মোবাইল থেকে ভিডিও ডিলিট করার জন্য উভয়ের মাঝে ধস্তাধস্তি হয়। একপর্যায়ে সুজন গাছের ডালা দিয়ে হৃদয়ের মাথায় আঘাত করলে অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তখন মোবাইলটি নিয়ে পানিতে ফেলে বাড়ীতে চলে যায় সুজন। পরদিন সকালে শুনে ঘটনাস্থলে হৃদয় মরে পড়ে আছে।
দাউদকান্দি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানায়, ঘটনার ৫দিনের মধ্যে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জাহাঙ্গীর তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৪৭১,৭৩৯
সুস্থ
৩৮৮,৩৭৯
মৃত্যু
৬,৭৪৮
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২,৩১৬
সুস্থ
২,৫৯৩
মৃত্যু
৩৫
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব